দুই সিটিতে একক প্রার্থী, সিদ্ধান্ত জানাবে জামায়াত

খুলনা ও গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে একক প্রার্থী দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট। তবে জোট শরীক জামায়াতে ইসলামী বৈঠ‌কে নীতিগতভাবে সিদ্ধান্ত মেনে নিলেও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাবেন বলে সময় নিয়েছে।

৬ এপ্রিল, শুক্রবার সন্ধ্যায় খা‌লেদা জিয়ার গুলশা‌নে‌র রাজ‌নৈ‌তিক কার্যাল‌য়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে ও জোটের সমন্বয়ক স্থায়ী ক‌মি‌টির সদস্য নজরুল ইসলাম খানের পরিচালনায় জোট বৈঠ‌কে এ সিদ্ধান্ত হয়।

বৈঠ‌কে অংশ নেওয়া একা‌ধিক জোট নেতা প্রিয়.কম‌কে এ তথ্য জানান।

বৈঠক শুরু‌তেই জোট প্রধান খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়সহ নানা প্রসঙ্গে ওঠে আসে। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জোট নেতাদের উদ্দেশে বলেন, ‘ম্যাডাম খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেছি। তিনি আপনাদেরকে সালাম জানিয়েছেন। সবাই‌কে ঐক্যবদ্ধভা‌বে অগ্রসর হ‌ওয়ার কথা জানাতে বলেছেন। তিনি সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন।’

বৈঠক শেষে জোটের শরিক বাংলাদেশ ন্যাপের মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভুঁইয়া বলেন, ‘বৈঠকে দুই সিটিতেই জোটের একক প্রার্থী রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে। জামায়াতে ইসলামী তাদের প্রার্থী প্রত্যাহারে বিষয়টি তাদের দলীয় বৈঠকে আলোচনা করে ২০ দলীয় জোটকে জানাবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন।’

তিনি জানান, আসন নিয়ে আলোচনার প্রসঙ্গ ওঠলে মির্জা ফখরুল এ সম্পর্কে বলেছেন, ‘আমাদের প্রথম কাজ নেত্রীর মুক্তি। তিনি মুক্ত হলেই নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি সাপেক্ষে নির্বাচন আসন নিয়ে চিন্তা করা যাবে।’

এদিকে দুটি সিটিতে জামায়াতের প্রার্থীরা প্রচার প্রচারণা-অব্যাহত রেখেছেন। বৈঠকে এ নিয়ে ফখরুল ইসলাম আলমগীর জামায়াত নেতা আবদুল হালিমকে হাসিমুখে বলেন, ‘আপনাদের প্রার্থীরা ভালোই প্রচার-প্রচারণা অব্যহত রাখছেন।’ উত্তরে আব্দুল হালিম বলেন, ‘জোটের স্বার্থে জামায়াত সব ধরনের সিদ্ধান্ত বাতিল করে ঐক্যবদ্ধ হয়ে ২০ দলকে আরও শক্তিশালী করবে।’

বৈঠকে থাকা দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে, খুলনা ও গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ঐক্যবদ্ধভাবে প্রার্থী দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। এ সময় গাজীপুরে জামায়াত ইসলামীর প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করায় কিছুটা ক্ষোভ জানান অনেকে। তখন আগামী জাতীয় নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আসন ভাগাভাগি নিয়ে উদ্বিগ্ন শরিক দলগুলোকে আশ্বস্ত করেছেন মির্জা ফখরুল ইসলাম।

খালেদা জিয়ার মুক্তি নিশ্চিত এবং নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি হলে সবাই মিলেই আসন নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করার কথা ২০ দলীয় জোট নেতাদের জানান মির্জা ফখরুল ইসলাম।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে জোটের সমন্বয়ক বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান প্রিয়.কমকে বলেন, ‘সিদ্ধান্ত হয়েছে দুই সিটিতে একক প্রার্থী হবে। মোটকথা ২০ দলীয় জোট ঐক্যবদ্ধভাবেই সিটি নির্বাচনে অংশ নেবে। আর এ সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েই বৈঠক ছেড়েছেন জোটের শরিকরা।’

বৈঠকে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও জোটের সমন্বয়ক নজরুল ইসলাম খান, জামায়াতে ইসলামের কেন্দ্রীয় কমিটির কার্য নির্বাহী সদস্য মাওলানা আবদুল হালিম, খেলাফত মজলিশের মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল অব. সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহিম, বাংলাদেশ ন্যাপের মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূইয়াসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র: প্রিয় ডটকম

Facebook Comments

comments