খালেদাকে মুক্ত করে নির্বাচনে অংশ নিন: নাসিম

আদালতের মাধ্যমে দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে আগামী নির্বাচনে অংশ নিতে বিএনপি নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, আন্দোলনের হুমকি দিয়ে লাভ নেই, আওয়ামী লীগ ভয় পাওয়ার দল না, জনগণ ছাড়া আওয়ামী লীগ কাউকে ভয় পায় না।

বুধবার এক অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ২১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ ডা. মিলন হলে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন মোহাম্মদ নাসিম।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়ার সভাপতিত্বে সভায় প্রধানমন্ত্রীর সাবেক স্বাস্থ্য উপদেষ্টা ডা. সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী, বিএমএ সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, স্বাচিপ সভাপতি অধ্যাপক ডা. এম ইকবাল আর্সলান, বিএমএ মহাসচিব ডা. ইহতেশামুল হক, স্বাচিপ মহাসচিব অধ্যাপক ডা. এমএ আজিজ প্রমুখ বক্তব্য দেন।

বিএনপি নেতাদের প্রতি স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম বলেন, খালেদা জিয়ার চিকিৎসাসেবা নিয়ে অযথা রাজনীতি করবেন না। চিকিৎসাসেবা নিয়ে রাজনীতি করা ঠিক নয়। জেল কোড অনুযায়ী তার সব ধরনের চিকিৎসাসেবার ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রাইভেট হাসপাতাল নয়, চিকিৎসার জন্য সরকারি হাসপাতাল ও চিকিৎসকদের প্রতি আস্থা রাখতে খালেদা জিয়ার প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, জনগণ ছাড়া আন্দোলন হয় না। যে কোনো আন্দোলনের কারণ থাকতে হয়। আপনারা যে আন্দোলন করেন, তার কোনো যুক্তি নেই। যুক্তি ছাড়া আন্দোলন হলে তো জনগণ সাড়া দেবে না। তিনি বলেন, খালেদা জিয়া জেলে গেছেন আদালতের রায়ে। আমরাও চাই তিনি আদালতের রায়ে মুক্তি লাভ করুক। এখানে তো আমাদের কিছুই করার নেই। জামিন দেয়া-না দেয়া তো আদালতের ব্যাপার। স্বাস্থ্যসেবার ক্ষেত্রে বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম বলেন, কমিউনিটি ক্লিনিকগুলোয় তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে গ্রামের মানুষের স্বাস্থ্য তথ্য সংরক্ষণ হচ্ছে। যেখানে সাধারণ মানুষ বিনামূল্যে প্রাথমিক চিকিৎসা এবং ৩২ রকমের ওষুধ পাচ্ছে।

তিনি বলেন, বড় শহরগুলোয় বিশ্বমানের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার পাশাপাশি উপজেলা, ইউনিয়ন এমনকি গ্রামপর্যায়ের তৃণমূল দরিদ্র মানুষের জন্য মৌলিক স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিয়েছে সরকার। গ্রামের ওয়ার্ড পর্যায়ের কমিউনিটি ক্লিনিক কার্যক্রম আজ সারা বিশ্বে উদাহরণ হিসেবে দেখানো হচ্ছে।

বিশ্ব ম্যালেরিয়া দিবস উদ্বোধন: অপর এক অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম বলেন, ম্যালেরিয়ার বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই করতে হবে। তাহলে দেশের প্রত্যেক মানুষ নিরাপদ ও সুস্থ থাকবে।

বুধবার দুপুরে রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে বিশ্ব ম্যালেরিয়া দিবসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক (রোগ নিয়ন্ত্রণ) অধ্যাপক ডা. সানিয়া তাহামিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের ডিপিএম (ম্যালেরিয়া ও এডিসবাহিত রোগ) ডা. এমএম আক্তারুজ্জামান।

মোহাম্মদ নাসিম আরও বলেন, পাঁচ বছরের মধ্যে বাংলাদেশ সম্পূর্ণভাবে ম্যালেরিয়ামুক্ত হবে। শ্রীলংকা ও নেপালের মতো দেশ পারলে আমরাও ম্যালেরিয়ামুক্ত হতে পারব। কেননা এরই মধ্যে আমরা ম্যালেরিয়া নির্মূলে অনেক দূর এগিয়েছি। অনেক সংক্রামক রোগও বাংলাদেশ থেকে নির্মূল হয়েছে। তাই ম্যালেরিয়াও নির্মূল হবে।

এ সময় রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম বলেন, আমাদের দেশে ১০ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা আশ্রিত। তাদের মধ্যে কয়েকজন ম্যালেরিয়া রোগী পাওয়া গেছে। এ ম্যালেরিয়া যাতে ছড়িয়ে না পড়ে, সেই ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

সূত্র: যুগান্তর

Facebook Comments

comments