পৃথিবীর সবচেয়ে প্রবীণ সার্জন বাংলাদেশের মাজহারুল

ডা. সাঈদ সুজন

পৃথিবীর সবচেয়ে প্রবীণ সার্জন কে? এটা নিয়ে গুগলে সার্চ দিলে যার নাম আসে তিনি হলেন, আল্লা লেভুশিকিনা। তিনি রাশিয়ার রাইজান সিটি হাসপাতালে অপারেশন করেন।

২০১৭ সালের ১ ফেব্রুয়ারি আল্লা লেভকে নিয়ে প্রথম ব্রিটেনের পত্রিকা ‘দ্যা মিরর’ একটা আর্টিকেল প্রকাশ করে। ৮৯ বছর বয়সে এখনো তিনি নিজ হাতে অপারেশন করেন এবং অবসরে না যাওয়ার ঘোষনা দেন। এই খবর ব্রিটেনসহ অন্যান্য দেশের মেডিকেল সম্প্রদায় কপি পেষ্ট করা শুরু করে।

“কালুর পোলা কালো হইছে”- এই খবর তিন মুখ থেকে চতুর্থ মুখে বলছে-” কালুর বউ নাকি কাক জন্ম দিয়েছে”। ৮৯ বছর হাত ঘুরতে ঘুরতে এক মাসের মধ্যেই ৫ বছর বাড়িয়ে আমাদের (বাংলাদেশের) দেশের অনেকে প্রচার করছে ৯৪ বছর বলে। আল্লা লেভু এক সপ্তাহে ৪টি অপারেশন করেন। সেটাকে লম্বা করে ১ দিনেই ৪টি করে অপারেশন করেন বলে লিখে যাচ্ছেন।

আমাদের দেশের মানুষ খুব কম যাচাই-বাছাই করেন। তাই অন্ধ অনুকরণে বিশ্বাসী। আমাদের দেশে যে ৮৯ বছরের চেয়েও বেশি বয়সী সার্জন আছেন এটা হয়তো ৯৯ ভাগ ডাক্তারই জানেন না।

আমাদের দেশে এখনো বেঁচে আছেন ৯২ বছর বয়সী একজন সার্জন। তাঁর নাম প্রফেসর মীর্জা মাজহারুল ইসলাম। তিনি ১৯৪৬ সালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রথম ব্যাচের ছাত্র। তিনি শাহবাগের বারডেম হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ সার্জন ছিলেন। রিটায়ার্ড করার পর থেকে এখনো রাজধানীর রাশমনো হাসপাতালে চেম্বার করেন। রেগুলার অপারেশন করেন।

তাছাড়া বায়ান্নোর ভাষা আন্দোলনের সাথে জড়িত ভাষা সৈনিকের মধ্যে একমাত্র মাজহার স্যারই বেঁচে আছেন। স্যার ২০১৮ সালে একুশে পদকে ভূষিত হয়েছেন।

তাহলে কে পৃথিবীর সবচেয়ে বয়স্ক সার্জন? স্যার চাইলেই গিনেস বুকে নিজের নাম তুলতে পারেন। কিন্তু প্রচার বিমুখদের কেউ চেনে না।

লেখক : ডা. সাঈদ সুজন, রেসিডেন্ট বিএসএমএমইউ, মেডিকেল অফিসার, বিসিএস (স্বাস্থ্য)।

সূত্র: মেডিভয়েসবিডি

Facebook Comments

comments