খালেদার পক্ষে লড়বেন কে এই ব্রিটিশ আইনজীবি?

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে থাকা বিভিন্ন মামলার আইনজীবীদের পরামর্শ দেওয়ার জন্য একজন ব্রিটিশ আইনজীবীকে নিয়োগ দিয়েছে দলটি। ওই আইনজীবীর নাম লর্ড কারলাইল।

মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় দলের নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, ‘বৃটেনে বিএনপির যারা সমর্থক আছেন, তারা ব্রিটিশ আইনজীবী লর্ড কারলাইলকে নিয়োগ দিয়েছেন। তিনি খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে থাকা ৩৬টি মামলায় দেশের আইনজীবীদের সহযোগিতা ও আইনি পরামর্শ দেবেন। প্রয়োজন হলে তিনি বাংলাদেশে আসবেন।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘লর্ড কারলাইল দীর্ঘদিন আইন পেশা ও রাজনীতির সঙ্গে জড়িত রয়েছেন। তিনি হাউজ অফ লর্ডসেরও সদস্য।’

দেশের আইনজীবীরা খালেদা জিয়ার মামলা পরিচালনায় ব্যর্থ কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘তিনি আমাদের আইনজীবীদের সহযোগিতা করবেন এবং আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে তুলে ধরবেন বিদেশি এ আইনজীবী। ক্রিমিনাল মামলার ওপরে তার অনেক বেশি অভিজ্ঞতা রয়েছে।’

ফখরুল জানান, লর্ড কারলাইল নিজেও খা‌লেদা জিয়ার মামলা প‌রিচালনাকারী আইনজীবী টি‌মের সঙ্গে সম্পৃক্ত হ‌তে পে‌রে আনন্দিত বলে জানিয়েছেন। তিনি খালেদা জিয়ার মামলার রায়ের বিষয়ে অবগত আছেন।।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ৩৬টি মামলা রয়েছে। এর মধ্যে একটি মামলায় তাকে বেআইনিভাবে সাজা দেওয়া হয়েছে। নজিরবিহীনভাবে জামিন রোহিত করা হয়েছে। এতে প্রমাণিত হয়, দেশে আইনের শাসন নাই। ন্যায়বিচার একেবারেই অনুপস্থিত।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবুল খায়ের ভূইয়া, আব্দুস সালাম, আতাউর রহমান ঢালী, সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম মঞ্জু, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ প্রমুখ।

উল্লেখ্য, পোল্যান্ড থেকে যুক্তরাজ্যে অভিবাসিত আইনজীবী লর্ড কার্লাইল বাংলাদেশে বিতর্কিত মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচারের কঠোর সমালোচক। তিনি এই ত্রুটিপূর্ণ বিচারের বিরুদ্ধে যুক্তরাজ্যে নানা সভা, সেমিনার এবং ব্রিটিশ সরকারের সঙ্গে দূতিয়ালির চেষ্টা করেছেন।

২০১৩ সালে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের ‘নিরপেক্ষতা এবং ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় ব্যর্থতার’ জন্য আন্তর্জাতিক তদন্ত দাবি জানান লর্ড কার্লাইল। জেনেভাস্থ ইউনাইটেড নেশনস হাই কমিশন ফর হিউম্যান রাইটস-এর হাই কমিশনার নাভী পিল্লাই বরাবর লিখিত এক চিঠিতে তিনি আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের বিচারের ক্ষেত্রে জাতিসংঘের হস্তক্ষেপও চেয়েছিলেন।

জামায়াত নেতা মুহাম্মদ কামারুজ্জামানের ফাঁসি কার্যকর না করার দাবিতে যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশ হাইকমিশনারের কাছে চিঠিও লিখেছিলেন ব্রিটিশ এই আইনজীবী।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন ও ঢাকা টাইমস

Facebook Comments

comments