সেনাদের দখলে রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন, অভ্যুত্থানের আভাস জিম্বাবুয়েতে

জিম্বাবুয়ের প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবে দেশটির সেনাপ্রধানের বিরুদ্ধে সেনা অভ্যূত্থানের অভিযোগ আনার পর রাজধানী হারারে জুড়ে অবস্থান নিয়েছে সেনা সদস্যরা। ইতোমধ্যে একটি রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন স্টেশন দখল করে রেখেছে তারা। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা যায়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সেনাপ্রধান জেনারেল কনস্টাতিনো চিয়েংগা ও তার মিত্রদের হুশিয়ার দেয় মুগাবের নেতৃত্বাধীন দল জানু-পিএফ। এর ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই বুধবার সেনাসদস্যরা অবস্থান নেয়।

তবে এক জেবিসি নামের ওই চ্যানেলে প্রকাশিত বিবৃতিতে তারা দাবি করে, শুধু সন্ত্রাসীদের লক্ষ্য করছে তারা। মুগাবেকে ক্ষমতা থেকে সরানোর কোনও পরিকল্পনা তাদের নেই। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, বুধবার সকাল থেকেই হারারের উত্তরাঞ্চলে ভারী গোলাবর্ষণের আওয়াজ পাওয়া যায়।

দক্ষিণ আফ্রিকায় নিযুক্ত জিম্বাবুয়ের দূত আইজ্যাক মোয়ো কোনোরকম অভ্যুত্থানের সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়েছেন। তিনি দাবি করেছেন, সরকার ‘সুরক্ষিত’ আছে। বিবৃতিতে সেনাবাহিনী বলে, তারা সামাজিক ও অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে অপরাধীদের ধরতে চায়। তারা বলে, ‘আমাদের অভিযান শেষ হয়ে যাওয়ার পর পরিস্থিতি আবার আগের মতো হয়ে যাবে।’

তারা জানায়, প্রেসিডেন্ট মুগাবে ও তার পরিবার নিরাপদে আছেন এবং তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

Facebook Comments

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here