‘ভারত আমাদের জাতীয় পরিচয়পত্রের সার্ভারে ঢুকতে চেয়েছিলো’

ভারতসহ চারটি দেশ আমাদের জাতীয় পরিচয়পত্রের সার্ভারে ঢুকতে চেয়েছিল বলে জানিয়েছেন জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের (এনআইডি) মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাইদুল ইসলাম।

রোববার একটি গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা জানান।

ব্রিগেডিয়ার সাইদুল ইসলাম বলেন, বর্তমানে আমাদের সার্ভার নিরাপদ। তবে ভারত ফ্রান্সসহ ৪টি দেশ আমাদের সার্ভারে ঢুকতে চায়। কিন্তু এটা আমি না করে দিয়েছি। এটি জাতীয় নিরাপত্তার বিষয়। আমাদের নাগরিকের তথ্য অন্য রাষ্ট্রকে দিবো না।

তিনি বলেন, আমরা নাগরিকদের ভোগান্তি কমাতে ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম সফটওয়্যার চালু করতে যাচ্ছি। মানুষের সেবাটা তাদের দ্বারপ্রাপ্তে পৌঁছে দেওয়ার জন্য এটি চালু করছি। এ সফটওয়্যারের ম্যধ্যেমে উপজেলা অফিসে ১০ দিন, জেলা ও আঞ্চলিক অফিসে তিন দিন করে ৬টি এবং এনআইডি উইংয়ে ১০ দিন এবং পাঠাতে ৪ দিনসহ মোট ৩০ দিন নির্ধারণ করা হচ্ছে। এক মাসের মধ্যে মানুষের সেবা বুঝে দেওয়া হবে। দেরি করার কোন সুযোগ থাকবে না। কোন উপজেলা অফিসার ফাইল আটকাতে পারবে না, গ্রাহকরা জমা দেয়ার পর অটোমেটিক এ সফটওয়্যারের মাধ্যমে হেড অফিসে চলে আসবে ফাইল।

তিনি আরও বলেন, ৩২ লাখ নাগরিক এখন পর্যন্ত স্মার্টকার্ড পেয়েছেন, তাদের কার্ড হারিয়ে গেলে বা কোন সংশোধনের প্রয়োজন পড়লে তিনি আর স্মার্টকার্ড পাবেন না। বরং সংশ্লিষ্ট নাগরিককে দেয়া হবে পূর্বের মতো লেমিনেটিং করা ম্যানুয়াল কার্ড।

এর কারণ হিসাবে এনআইডি জানিয়েছে, প্রতিটি নাগরিকের জন্য আপাতত একটি স্মার্টকার্ড বরাদ্দ রয়েছে। ফলে এই মুহূর্তে একের অধিক কাউকে কার্ড দেয়া সম্ভব হবে না। তবে ২০১৮ সালের পর এই সংকট থাকবে না বলে দাবি এনআইডি মহাপরিচালকের।

সূত্র: শীর্ষনিউজ

Facebook Comments

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here