নির্বাচনী রাজনীতিতে যেভাবে সক্রিয় হচ্ছে বিএনপি

বাংলাদেশের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে আর এক বছর পরই। নির্বাচনকে সামনে রেখে গত নির্বাচন বর্জন করা অন্যতম বড় রাজনৈতিক দল বিএনপি এখন থেকেই নির্বাচনী রাজনীতিতে সক্রিয় হচ্ছে।

লন্ডন থেকে দেশে ফিরে এরই মধ্যে রাজনৈতিক তৎপরতা শুরু করেছেন দলীয় প্রধান খালেদা জিয়া। রোহিঙ্গাদের জন্য ত্রাণ সহায়তা নিয়ে শীর্ষ নেতৃত্বের কক্সবাজার সফর থেকেই বিএনপির নির্বাচনমুখী রাজনীতির সূত্রপাত বলা যায়।

দলের পক্ষ থেকে এ সফরকে রাজনৈতিক কর্মসূচি বলা না হলেও কক্সবাজার সফরের ঘটনাপ্রবাহকে কেন্দ্র করেই এখন রাজনৈতিক অঙ্গনে পাল্টাপাল্টি বক্তব্য বিবৃতি চলছে। দেয়া হচ্ছে রাজনৈতিক কর্মসূচিও।

কক্সবাজার সফরকালে ঢাকা থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে বহু নেতাকর্মী সমর্থকদের জড়ো হতে দেখা গেছে। নির্বাচনে মনোনয়ন প্রত্যাশী অনেকে দলীয় প্রধানের সামনে জনপ্রিয়তা প্রদর্শনের চেষ্টাও করেছেন এ সময়।

বিবিসিকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমদ বলেন, এখন তাদের সব কর্মসূচির উদ্দেশ্য নেতাকর্মীদের উজ্জীবিত করা এবং বিএনপির দাবির পক্ষে জনমত সৃষ্টি করা।

তিনি বলেন, “গত দুই বছর আমরা আন্দোলনমুখী কোনো কর্মসূচি দেই নাই। কিন্তু এখন তো সময় এসেছে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়ার। তার (খালেদা জিয়ার) এই সফরই মাত্র শুরু। এরপরেও আমরা কিছু কর্মসূচি গ্রহণ করবো। সেখানে ব্যাপকভাবে সারা বাংলাদেশে বিশেষ করে বিভাগীয় শহরগুলোতে তিনি সফরে যাবেন।”

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি নির্বাচন বর্জনের সিদ্ধান্ত নিয়ে বিএনপির মধ্যে পক্ষে-বিপক্ষে মত রয়েছে। সেই প্রেক্ষাপটে বিএনপির জন্য আগামী জাতীয় নির্বাচন যে গুরুত্বপূর্ণ, সেটা দলের সবাই উপলব্ধি করছেন।

সূত্র: শীর্ষনিউজ

Facebook Comments

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here